|

জুতার ফিতা বাধার নিয়ম ও বাছাইকৃত নতুন ডিজাইন

জুতার ফিতা বাধার নিয়ম: আসসালামু আলাইকুম পাঠকবৃন্দ, সবাইকে স্বাগতম জানাচ্ছি আমাদের আজকের আর্টিকেলে। দেখুন, দৈনন্দিন জীবনে আমাদের জুতা পরাটা খুবই কমন একটি কাজ। ঘর থেকে বাইরে বের হতেই পড়তে হয় জুতা। একেক সময় একেক জুতা পরিধান করে থাকি আমরা। অফিসে যেতে পায়ে পরিধান করি জুতা, আবার কোন বিয়ের অনুষ্ঠান বা পার্টিতে যেতেও জুতা পড়ে থাকি।

কিন্তু আমাদের মাঝে আমরা অনেকেই জুতার ফিতা বাধার নিয়ম সম্পর্কে জানিনা। তাই আজকের আর্টিকেলে জুতার ফিতা বাধার নিয়ম আপনাদেরকে সুস্পষ্টভাবে জানিয়ে দেব। তাহলে আসুন জেনে নেই- জুতার ফিতা বাধার নিয়ম ও বাছাইকৃত নতুন ডিজাইন সম্পর্কে। 

জুতার ফিতা বাধার নিয়ম
জুতার ফিতা বাধার নিয়ম

আরও দেখুনঃ মূলধন কাকে বলে ?

জুতার ফিতা বাধার নিয়ম

প্রকৃত সত্যি কথা হলো- আপনি যদি জুতার ফিতা বাধার জন্য একটি মাত্র উপায় জেনে থাকেন তাহলে বলা চলে আপনার জানার বাইরে থেকে যাবে আরো অনেক বিষয়। কেননা পায়ের জুতার ফিতা বাধার নিয়ম শুধুমাত্র একটা নয়। জুতার ফিতা বাধার বহু উপায় ও কৌশল রয়েছে। আর এটি একটি প্রতিবেদনে জানিয়েছে ওয়াশিংটন পোস্ট। 

অনেকেই হয়তো ভাবতে পারেন- জুতার ফিতা বিভিন্ন স্টাইলে বাধার পেছনে কি এমন কারণ লুকিয়ে রয়েছে? যেমন তেমন করে বাধলেই তো ব্যস্ত হয়ে গেল। তবে জুতার ফিতা বাধার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে ইতোমধ্যে বেশ কিছু বিষয় বিশেষজ্ঞরা তুলে ধরেছেন। যা আমরা আজকের আর্টিকেলে আপনাদেরকে জানাবো। 

আজকের আলোচিত বিষয় সমূহ হলো:

  • জুতার ফিতা বাধার নিয়ম
  • জুতার ফিতা বাধার সবচেয়ে কার্যকর উপায়
  • জুতার ফিতা বাধার সহজ নিয়ম
  • জুতার ফিতা বাধার ডিজাইন
  • জুতার ফিতা বাধার নতুন স্টাইল
  • জুতার ফিতা সঠিকভাবে বাধার উপকারিতা
  • জুতার ফিতার প্রকারভেদ
  • জুতার ফিতা তাঁত এবং সরঞ্জাম সমূহ।

তো সুপ্রিয় পাঠকবৃন্দ, তাহলে আসুন কথা না বাড়িয়ে স্টেপ বাই স্টেপ জেনে নেই বিস্তারিত ইনফরমেশন গুলো। 

আরও দেখুনঃ ইসলামিক ক্যালেন্ডার ২০২৩ | আরবি ক্যালেন্ডার

জুতার ফিতা বাধার কার্যকর উপায়

জুতার ফিতা বাধার কার্যকরি বহু উপায় রয়েছে। তাই সেই সকল উপায় বা কলাকৌশল অবলম্বন করে আপনি খুব সহজেই জুতার ফিতা বাড়তে সক্ষম হবেন। এতে করে আপনি জুতা পড়ে কম্ফোর্টেবল ফিল করবেন এবং দেখতেও অনেক বেশি স্মার্ট ও সুন্দর দেখাবে। তাই সঠিক ও সুন্দরভাবে জুতা বাধা শিখে নিন আজকে। জুতা নতুন করে বাধার স্টাইলসমূহ জানা আপনার জন্য অত্যন্ত জরুরী। 

জুতার ফিতা বাধার ডিজাইন

জুতার ফিতা বাধার জন্য বেশ কয়েকটি ডিজাইন রয়েছে। মূলত এই কয়েকটি স্টাইলে আপনি জুতার ফিতা বাঁধতে পারেন। সেগুলো হলো:

  • গ্যাপ লেসিং
  • লুপ লক লেসিং
  • সাইড লেসিং

জুতার ফিতা সঠিকভাবে বাধার নিয়ম

জুতার ফিতা মূলত স্বাভাবিক ভাবেই বাঁধতে হয়। তবে পায়ের কোন সংবেদনশীল অংশের জন্য সেই স্থানটি বাদ দিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করতে হবে। আর আপনি যদি গ্যাপ লিস্টিং পদ্ধতিতে জুতার ফিতা বাঁধেন তাহলে আপনার পায়ের কোথাও সমস্যার সৃষ্টি হলে আপনি জুতা পড়েও কমফোর্টেবল ফিল করবেন। গ্যাপ লিস্টিং পদ্ধতিতে জুতা বাধার নিয়ম নিচের ছবি অনুযায়ী চেষ্টা করুন। 

জুতার ফিতা বাধার নিয়ম

অপরদিকে আপনি যদি সাইড ব্লেসিং পদ্ধতিতে জুতার ফিতা বাঁধতে চান সেক্ষেত্রে নিচের চিত্রের ডান পাশের জুতা বাধার নিয়ম অনুযায়ী চেষ্টা করুন। 

জুতার ফিতা বাধার নিয়ম

লুপ লক লেসিং পদ্ধতিতে জুতার ফিতা বাঁধতে চাইলে নিজের চিত্রটি দেখে ট্রাই করুন। 

জুতার ফিতা বাধার নিয়ম

ব্যাস, হয়ে যাবে আপনার নতুন স্টাইলে নতুনভাবে কম্ফোটেবল জুতার ফিতা বাধা। আরও দেখুনঃ পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার

জুতার ফিতা সঠিকভাবে বাধার উপকারিতা

সম্প্রতি একটি গবেষণায় জানা গেছে যে- জুতার ফিতা ভালোভাবে বাধার উপর মানুষের অনেক কিছুই নির্ভর করে। এমনকি একজন খেলোয়াড়ের পারফরম্যান্স ও নির্ভর করে জুতার ফিতা বাধার নিয়মের উপর। এর পাশাপাশি জুতার ফিতার সঠিকভাবে না বাধলে খুব দ্রুত জুতা নষ্ট হয়ে যায়। এক কথায় আয়ু কমে যায় জুতার। আর মূলত এই কারণেই জুতার ফিতা বাধার উপায় সমূহ সম্পর্কে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়ার কথা জানিয়েছেন জর্জ টাউন রানিং কোম্পানির ম্যানেজার রব ভয়েগট। 

জুতার ফিতার প্রকারভেদ

জুতার ফিতা মূলত দুই প্রকারের হয়ে থাকে। সেগুলো হলো:

  • গোলাকার জুতোর ফিতা
  • ফ্ল্যাট জুতোর ফিতা

জুতার ফিতা তৈরির সরঞ্জাম

জুতার ফিতা তৈরি করার জন্য মেশিনের প্রয়োজন পড়ে। আমরা ইতোমধ্যে দুই ধরনের জুতার ফিতার নাম জেনেছি। আর সেই দুই ধরনের ফিতা তৈরি করার জন্য সরঞ্জাম স্বরূপ প্রয়োজন পড়ে থাকে:

  • গোলাকার দড়ি ব্রেইডিং মেশিন
  • ব্রেইডিং মেশিন

পরিশেষে: তো সুপ্রিয় পাঠক বৃন্দ, এই ছিল আমাদের জুতার ফিতা বাধার নিয়ম সম্পর্কিত আজকের আর্টিকেল। জুতার ফিতা বাধার নিয়ম নিয়ে যদি কোন প্রশ্ন থাকে আমাদের কমেন্ট করে জানান। সেই সাথে গুরুত্বপূর্ণ ইনফরমেশন সবসময় পেতে আমাদের সাথে থাকুন আল্লাহ হাফেজ।

সাধারন প্রশ্নাবলীঃ

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *